কপালের ডানদিকেঃ

ললাট বা কপালের দক্ষিণপাশে নাকের উপড়ে তিল থাকলে দৈবধন ও যশলাভের সম্ভবনা থাকে। অর্থাৎ আপনি আপনার জীবনকালে কোনো দৈবধন সম্পদ পেতে পারেন অথবা জীবনে খুব খ্যাতি লাভ করতে পারেন।

চোখের নীচেঃ

চোখের নিচে তিল খুব ভালো ফল নির্দেশ করে। এটি অধ্যবসায়ীর লক্ষণ। যে কোন কিছু সহজে ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নয় এই ব্যক্তি। অত্যন্ত ধৈর্য্যের সাথে একাগ্র চিত্তে চেষ্টা করে সফল হন।

গণ্ডস্থলেঃ

গণ্ডস্থলে তিল থাকলে সেই ব্যাক্তি কখনো ধনশালী হয় না।

ঠোঁটেঃ

ওষ্ঠে তিল অনেকাংশে অনেক আকর্ষনীয় হয়ে উঠে। আর  ওষ্ঠে তিল থাকলে সে পুরুষ বা মহিলার বিলাসিতার ও প্রেমিকতার চিহ্ন নির্দেশ করে।

কণ্ঠেঃ

কন্ঠে  তিল বিবাহ দ্বারা ধনলাভ প্রকাশ করে। এটি শুভ ফলদায়ী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এছাড়া এটি ধৈর্য শীলতা ,বিশ্বাস ও ভক্তিমানের চিহ্ন। যদি কারও কণ্ঠে তিল থাকে তাহলে তিনি অসীম ধৈর্য্যবান , আত্মবিশ্বাসী এবং ধর্ম ও কর্মে প্রতি বিশ্বাস বজায় রাখেন।

বুকেঃ

বুকের তিল সুস্থদেহ ও সৌভাগ্যের পরিচায়ক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

ডানদিকের পাঁজরেঃ

কারও ডানদিকের পাঁজরে  তিল থাকলে সেটি বুদ্ধিহীনতাকে নির্দেশ করে।

পেটেঃ

উদরের তিল থাকা ব্যক্তি ভোজনরসিক হয়ে থাকে। এছাড়া তিনি অর্থপর হওয়ার পাশাপাশি সুন্দর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন পোশাক পরিধান করতে পছন্দ করেন।

ডানবাহুতেঃ

ডানবাহুতে তিল সবল ও শক্তিশালী দেহের অধিকারীর পরিচায়ক । এছাড়া এসব ব্যক্তি অসীম ধৈর্য্যশালী হয়ে থাকেন।

নাকের ডানপাশেঃ

আপনার যদি নাকের ডানপাশে চক্ষুর দিকে তিল থাকে আপনি একটি সুন্দর ও সুদীর্ঘ জীবনের অধিকারী হতে পারেন।

নাকের বামপাশেঃ

নাসিকার বামপার্শ্বের তিল নির্ধনি ,অপব্যায়ী ও মূর্খতার পরিচায়ক। তাই নাকের বাম পাশে তিল থাকলে একটু হিসেব বিবেচনা করে চলা উচিত।

বক্ষস্থলে সুরোম তিলঃ

বক্ষস্থলের  মধ্যম ও সুরোম তিল বিদ্বান ও কবিত্ব শক্তির চিহ্ন। অর্থাৎ কারো যদি বুকের মাঝে রোমযুক্ত তিল থাকে তাহলে তিনি বিদ্যা-বুদ্ধিমান ও সুন্দর লেখনীশক্তির অধিকারী হবেন।

ডানপায়েঃ

ডানপায়ে তিল থাকা খুবই ভালো।  কেননা দক্ষিণ পদের  তিল জ্ঞানের পরিচায়ক। যদি আপনার ডানপায়ে তিল থাকে তাহলে আপনি সুবিশাল জ্ঞানের অধিকারী হতে পারবেন।

কানেঃ

কানের ভেতরের দিকে তিল থাকে তাহলে তিনি সৌভাগ্যবান ও যশশালী হবেন।

হৃদয়ের বিপরীতদিকেঃ

হৃদয়ের বিপরীতদিকের তিল নৃশংসতার চিহ্ন। এই কারণে হৃদয়ের বিপরীত দিকে তিল থাকলে রাগ ও হিংসা ,অহংকার ইত্যাদি রিপু গুলিকে জয় করতে হবে।

কপালের বামদিকে মাথার চুলের কাছেঃ

কপালের বাম পাশে তিল  দুঃখ ও অসৎ চরিত্রতার চিহ্ন। অর্থাৎ কপালের বামদিকে চুলের কাছাকাছি তিল থাকলে একটু চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের  দিকে নজর দিতে হবে। এছাড়াও তার সাথে জীবনে ধৈর্য্য ও সংযম আনা অত্যন্ত জরুরি।

বামগন্ডেঃ

বামগন্ডের তিল দাম্পত্য প্রেমে সুখী ও অসৌভাগ্যের চিহ্ন। বামগন্ডে (কটিসন্ধি বা কুঁচকিতে) অর্থাৎ, আপনার পেট এবং উরুর মাঝখানে নিতম্বের বামদিকে যদি তিল থাকে। তাহলে সেটি আপনার দাম্পত্য জীবনে সুখী হওয়াকে নির্দেশ করে।

থুতনিতেঃ

যদি কোনো মহিলার থুতনিতে তিল থাকে তাহলে তিনি একটু রুক্ষ স্বভাবের হন। তিনি সহজে কারো সাথে মিশে যেতে পারে না। এইসকল মহিলাদের মেজাজ বেশিরভাগ সময় খিটখিটে থাকে।

ভ্রুতেঃ

ভ্রু-নিম্নস্থ তিল সারা জীবন দুঃখ দারিদ্র্যের লক্ষণ।

মাথার মাঝখানেঃ

মাথার মাঝে হালকা ডানদিক ঘেঁষে তিল থাকে তারা সাধারণত তীক্ষ্ণ বুদ্ধিসম্পন্ন হন এবং সুখ সমৃদ্ধিপূর্ণ জীবন লাভ করে। মাথার বামদিক ঘেঁষে থাকা তিল অর্থ অপচয়ের সংকেত বহন করে।