শিখ ধর্মাবলম্বী মানুষদের জন্য

এই বিশেষ দিনে শিখ ধর্মগুরু হরগোবিন্দজি যিনি স্বেচ্ছায় এক বছরের মতো সময় ধরে মুঘল সম্রাট জাহাঙ্গীরের কারাগারে বন্দী ছিলেন তিনি মুক্তি পান।তবে তিনি নিজের মুক্তির পরেও কারাগার ত্যাগ করে যেতে অস্বীকার করেন এবং শর্ত রাখেন তার সঙ্গে আরও যে ৫২টি হিন্দু রাজাকে মুঘল সম্রাট বন্দী করে রেখেছে তাদেরও মুক্তি দিতে হবে।মুঘল সম্রাট জাহাঙ্গীর তার এই শর্ত মেনে নেন এবং তার সাথে ৫২জন হিন্দু রাজদেরও মুক্তি দেন এই বিশেষ দিনে।তাই এই দিনটি শিখ ধর্মাবলম্বীদের কাছে একটি স্মরণীয় দিন।তারা এই দিনটি মহা ধুম ধামের সঙ্গে” বন্দী ছোড় দিবস” হিসাবে পালন করে।

বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কাছে

এই বিশেষ দিনে বুদ্ধদেব নির্বাণ লাভের জন্য তার গৃহ ত্যাগ করেছিলেন বলে অনেকেই মনে করেন।আর তাই বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা এই দিন প্রদীপ জ্বালিয়ে বা মোমবাতি জ্বালিয়ে বুদ্ধদেবকে স্মরণ করা হয়।

জৈন ধর্মাবলম্বীদের কাছে

এই বিশেষ দিনে ৫২৭অব্দে জৈন ধর্মের প্রচারক এবং প্রবর্তক মহাবীর নির্বাণ বা মোক্ষ লাভ করেন।তাই এই দিনটি জৈন ধর্মাবলম্বী মানুষেরা প্রদীপ বা মোমবাতি জ্বালিয়ে আলোক সজ্জা করেন।

এছাড়াও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অনেকে মনে করেন পিতৃ পুরুষগণ এইদিনে যম লোক ছেড়ে স্বর্গলোকের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন আর তাই তাদের যাত্রাপথের অন্ধকার দূর করার জন্য প্রদীপ এবং ফটকা এবং রং মশাল জ্বালানো হয়। এছাড়াও অনেক জায়গায় ফসল উৎপাদনের উৎসব হিসাবেও পালন করা হয়।

শুধুমাত্র ভারত বর্ষেই নয়, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো, মায়ানমার, মরিশাস, নেপাল, গায়ানা, সিঙ্গাপুর, সুরিনাম, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কা এবং ফিজিতেও দেওয়ালিতে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। ভারত বর্ষের বাইরে ইংল্যান্ডের লেস্টার শহরে সবচেয়ে বড় দেওয়ালি উৎসব পালিত হয়। তাই জাতি ধর্ম দেশ বর্ণ নির্বিশেষে আসুন মেতে উঠি আজকের শুভ দীপাবলি উৎসবে এবং সকল প্রকার ধার্মিক গোঁড়ামি এবং সাম্প্রদায়িক শক্তিকে হারিয়ে সংহতি এবং ভাতৃত্বের বন্ধন গড়ে তুলি এই উৎসবের মাধ্যমে। সকলকেই জানাই “বাংলা পঞ্জিকা”র পক্ষ থেকে দীপাবলির আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন।

সোর্সঃ সংগৃহিত